ওয়ালটন ১ টন এসির দাম ২০২৪

ওয়ালটন এসির দাম ২০২৪

ওয়ালটন এসির দাম ২০২৪: গরমের মৌসুমে নিজের ঘরে এসি লাগানোর পরিকল্পনা করছেন অনেকে। তবে এসি কেনার সময়ে বিভিন্ন প্রশ্ন ও চিন্তা মাথায় ঘুরে আসে। অনেকের মধ্যে এসির বিষয়ে বিরক্তি ও বিবেচনা দেখা যায়। কিছু মানুষ কেবল ব্র্যান্ডের অনুভূতি থেকেই এসি কিনে ফেলেন। অনেকে বিবেচনা না করে এসি কিনার ফলে পরবর্তীতে অসন্তোষের মুখোমুখি হতে হলেও, সেই দামি বিনিয়োগ পরেও প্রাপ্ত হয় না।এই পোষ্টের একটি প্রধান উদ্দেশ্য হলো ন্যায্য দামে একটি ভালো এসি কেনার সিদ্ধান্ত নেয়া। যদি আমরা যথার্থ দামে দেশী তৈরি এসি পেতে পারি এবং সেগুলো সুবিধার দিকে বিদেশী ব্র্যান্ডগুলোকে পার্থক্য প্রদর্শন করে, তবে আমরা কেনো সেটি কিনব না সেটি বিচার করা জরুরি।

ওয়ালটন, একটি বাংলাদেশী ইলেকট্রনিক্স নির্মাতা প্রতিষ্ঠান, এখন তাদের উৎপাদিত পণ্যের মধ্যে একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় আইটেম উৎপাদন করছে – ওয়ালটন এসি। বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর অন্যান্য দেশের গ্রাহকদের চাহিদা মেটাতে, ওয়ালটন কোম্পানি অনেকগুলি প্রকারের এসি উৎপাদন করে, যেমন উইন্ডো এসি, স্প্লিট এসি, ইনভার্টার এসি, এবং পোর্টেবল এসি। ওয়ালটন এসি দেশী পন্য হিসেবে পরিচিত, এটি সম্মিলিত দামে বিশেষ মূল্য দিয়ে প্রদান করা হয়। এটি আধুনিক প্রযুক্তি এবং দৃঢ় কর্মক্ষমতার সাথে তৈরি হয়ে থাকে, যা বাংলাদেশের গ্রাহকদের মধ্যে খুব প্রিয় করে। ওয়ালটন এসি ব্র্যান্ড বাংলাদেশের একটি পরিচিত এবং বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড। তারা উন্নতমানের উৎপাদনের সাথে একত্রিত এবং দ্বারা নির্মিত এসি প্রদান করে। ওয়ালটন এসির বিভিন্ন মডেল আছে যা বিভিন্ন সাইজ, ধরণ এবং বৈশিষ্ট্যে উপলব্ধ যা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত প্রয়োজনীয়তা এবং বাজারের চাহিদা অনুযায়ী সাজানো হয়। ওয়ালটন এসির প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলি হলো দ্বারা সমর্থিত সহজ ব্যবহার, কার্যকর কোম্পাক্ট ডিজাইন, শক্তিশালী পারফরম্যান্স এবং টেকনোলজিতে নতুন উন্নতি।

ওয়ালটন এসির ফিচারসমূহ:

১. পরিবেশ বান্ধব: ওয়ালটন এসি পরিবেশ বান্ধব রেফ্রিজারেন্ট ব্যবহার করে যা অন্য রেফ্রিজারের তুলনায় উন্নত।

২. ইনভার্টার প্রযুক্তি: রুমের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে ওয়ালটন এসি দক্ষ ইনভার্টার প্রযুক্তি ব্যবহার করে।

৩. টার্বো কুলিং: গরম দিনে দ্রুত এবং কার্যকর শীতল পরিবেশ সৃষ্টি করতে ওয়ালটন এসি টার্বো কুলিং ফিচার ব্যবহার করে।

৪. এয়ার ফিল্টার: এন্টি-ব্যাকটেরিয়াল ফিল্টার, ডাস্ট ফিল্টার, এবং ডিহিউমিডাইফাইং ফিল্টার দ্বারা ওয়ালটন এসি রুমের বাতাসকে বিশুদ্ধ এবং অভ্যন্তরীণ বাতাস প্রদান করে।

৫. ওয়াই-ফাই কানেক্টিভিটি: কিছু মডেলে ওয়াই-ফাই কানেক্টিভিটি সহ ওয়ালটন এসি স্মার্টফোন অ্যাপ দিয়ে দূরথেক নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

৬. অটো-রিস্টার্ট, স্লিপ মোড, এয়ার পিউরিফিকেশন, এবং স্মার্ট কন্ট্রোল সহ উন্নত প্রযুক্তি সমৃদ্ধ ওয়ালটন এসির মধ্যে।

Walton Gyser Price: ওয়ালটন গিজারের দাম ২০২৪

ওয়ালটন এসির দাম

প্রতিটি এসির দাম নির্ভর করে এসির ক্ষমতা, প্রযুক্তি, ইনভার্টার বা নন-ইনভার্টারের উপর। সাধারন এসি ৩০,০০০ টাকা থেকে শুরু তবে, ওয়ালটন ব্র্যান্ডের টার্বো কুলিং প্রযুক্তি, এয়ার পিউরিফিকেশন, ডিহিউমিডিফিকেশন সিস্টেম ইত্যাদি যুক্ত এসির দাম ৫০,০০০ টাকা থেকে শুরু হয়।

Walton 1 Ton Ac Price in Bangladesh 2024

১। WSI-INVERNA (EXTREME SAVER)-12C [SMART] – বর্তমান মূল্য: ৫৭,১১২ টাকা।

২। WSI-INVERNA (EXTREME SAVER)-12C – বর্তমান মূল্য: ৫৫,৩৫২ টাকা।

৩। WSI-OCEANUS (VOICE CONTROL)-12F [UV-CARE] – বর্তমান মূল্য: ৪৮,৩১২ টাকা।

৪। WSI-KRYSTALINE (ecOzone)-12F – বর্তমান মূল্য: ৫০,০৭২ টাকা।

৫। WSI-KRYSTALINE-12F [PLASMA] – বর্তমান মূল্য: ৪৪,৭৯২ টাকা।

৬। WSI-RIVERINE-12F – বর্তমান মূল্য: ৪৩,৯১২ টাকা।

আপনি কি বই পড়তে ভালবাসেন? পিডিএফ বই পড়তে ডাউনলোড করতে ভিজিট করুন: পিডিএফ আর্কাইভ বিডি

Walton 1.5 Ton Ac Price in Bangladesh 2024

১। WSI-OCEANUS (VOICE CONTROL)-18F – বর্তমান মূল্য:৬২,৯২০ টাকা।

২। WSI-OCEANUS (VOICE CONTROL-BN)-18F – বর্তমান মূল্য:৬২,৯২০ টাকা।

৩। WSI-OCEANUS (VOICE CONTROL-BN)-18F [UV-CARE] – বর্তমান মূল্য: ৬৩,৮০০ টাকা।

৪। WSI-KRYSTALINE-18C [DEFENDER] – বর্তমান মূল্য: ৬২,০৪০ টাকা।

৫। WSI-KRYSTALINE-18C [SMART DEFENDER] – বর্তমান মূল্য: ৬৩.৩৬০ টাকা।

৬। WSI-KRYSTALINE-18F [DEFENDER] – বর্তমান মূল্য: ৬২,০৪০ টাকা।

৭। WSI-KRYSTALINE-18F [SMART DEFENDER] – বর্তমান মূল্য: ৬৩,৩৬০ টাকা।

৮। WSN-RIVERINE (PRO)-18F – বর্তমান মূল্য: ৫৪,৪৭২ টাকা।

৯। WSN-BEVELYN-18A – বর্তমান মূল্য: ৪৮,৩১২ টাকা।

১০। WSN-VENTURI-18A – বর্তমান মূল্য: ৪৩,৯১২ টাকা।

১১। WSI-KRYSTALINE (PRETO)-18F – বর্তমান মূল্য: ৬৩,৩৬০ টাকা।

১২। WSI-INVERNA (SUPERSAVER)-18H [PLASMA] – বর্তমান মূল্য: ৬৫,০৩২ টাকা।

১৩। WSI-INVERNA (SUPERSAVER)-18H [SMART PLASMA] – বর্তমান মূল্য: ৬৬,৪৪০ টাকা।

১৪। WSI-OCEANUS (VOICE CONTROL)-18F [UV-CARE] – বর্তমান মূল্য: ৬৪,৬৮০ টাকা।

১৫। WSI-KRYSTALINE (PRETO)-18F [BLUETOOTH] – বর্তমান মূল্য: ৬৬,৮৮০ টাকা।

Walton ২ Ton Ac Price in Bangladesh 2024

১। WSI-RIVERINE-24H [SMART] – বর্তমান মূল্য: ৮৪,৫০০ টাকা।

২। WSI-INVERNA (SUPERSAVER)-24H [SMART PLASMA] – বর্তমান মূল্য: ৮০,৮৭২ টাকা।

ওয়ালটন ১ টন এসির দাম ২০২৪ ও ছবি:

এসির মডেলের নামছবিমূল্য
WSI-INVERNA (EXTREME SAVER)-12C [SMART] বর্তমান মূল্য: ৫৭,১১২ টাকা।
WSI-COATEC (SUPERSAVER)-12F [UV] বর্তমান মূল্য: ৪৯,১৯২ টাকা।
WSI-INVERNA (SUPERSAVER)-12F [PLASMA] বর্তমান মূল্য: ৪৮,৩১২ টাকা।
WSI-INVERNA (SUPERSAVER)-12F [SMART PLASMA] বর্তমান মূল্য: ৫০,০৭২ টাকা।
To get your business ideas, visit here wikiger.com

থ্রি ইন ওয়ান কনভার্টার প্রযুক্তিতে এই এসি গ্রাহকের রুমের আয়তনের ভিত্তিতে টন বা বিটিইউ পার আওয়ারের জন্য রূপান্তর সুবিধা রয়েছে। অর্থাৎ এই এসি রুমের আকারের অনুযায়ী এক টন বা ১২ হাজার বিটিইউ পার আওয়ারের জন্য রিমোট বা স্মার্টফোনের সাহায্যে পরিবর্তন করা যেতে পারে এবং এসি পার আওয়ার করতে পারে এক টন বা ৯ হাজার বিটিইউ এবং আধা টন বা ছয় হাজার বিটিইউ অনুরূপ ভাগে।

ওয়ালটনের এই এসিতে নতুনভাবে অবস্থিত রয়েছে এয়ার প্লাজমা প্রযুক্তি, যা বাতাসে মৌজুদ ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসগুলির ধ্বংস করে এবং ঘরের ভেতরে একটি স্বাস্থ্যকর এবং সুখদায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করে। এই এসি-তে ব্যবহৃত হচ্ছে ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার টেকনোলজি যা সাথে নিয়ে আসে পরিবেশবান্ধব আর-৩২ রেফ্রিজারেন্ট। এটি বিশ্বের বিদ্যুৎ সাশ্রয় বজায় রাখার পাশাপাশি বিশ্ব পরিবেশকে নির্মল রাখে।

ফ্রস্ট ক্লিন টেকনোলজি এসিটি নিজেই নিজেকে পরিষ্কার করে যার জন্য ইভাপোরেটরে আইস ব্যবহার করা হয়। এই প্রযুক্তিতে ইনডোর ইউনিটে থাকা ধূলিকণা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিষ্কার হয় এবং স্মার্ট কন্ট্রোল ব্যবহার করে স্মার্টফোন দিয়ে এসির নিয়ন্ত্রণ সম্পন্ন করা যায়। অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকরা এসির বিদ্যুৎ খরচ থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় তথ্য স্ক্রীনে মনিটর করতে পারেন।

ওয়ালটন ১ টন এসির দাম ২০২৪: ওয়ালটন এসি প্রদান করছে ৩৬ মাসের সুবর্ণ কিস্তির অফার, এবং এটা উপভোগ করা সহজ। এটের সাথে ০% ইন্টারেস্টে ১২ মাসের কিস্তি সুবিধা অথবা অফার ও রয়েছে।

ওয়ালটনের ১টন এসির ওয়ারেন্টি: আবাসিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে

  • প্রতিটি এসির কম্প্রেসারের ওয়ারেন্টি ১০ বছর।
  • বিভিন্ন যন্ত্রাংশের ৩ বছরের ওয়ারেন্টি।
  • বিক্রয় পরবর্তী ১ বছরের সার্ভিসিং সম্পূর্ণ ফ্রি।

ওয়ালটনের ১টন এসির ওয়ারেন্টি: ব্যবসায়িক ব্যবহারের ক্ষেত্রে

  • প্রতিটি এসির কম্প্রেসারের ওয়ারেন্টি ০৫ বছর।
  • বিভিন্ন যন্ত্রাংশের ২ বছরের ওয়ারেন্টি।
  • বিক্রয় পরবর্তী ১২ মাসের সার্ভিসিং সম্পূর্ণ ফ্রি।

শর্তাবলী

  1. এই ওয়ারেন্টি নিম্নলিখিত ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না –
    i) যদি পণ্যটি ব্যবহার বিপর্যয়, অবহেলা করা অথবা বাণিজ্যিক ভিত্তিতে ভাড়ায় দেওয়া হয়। ওয়ারেন্টি অবৈধ হবে যদি অননুমোদিত সেবা প্রকারকের দ্বারা পরিষ্কার, প্রতিস্থাপন, পরিবর্তন বা পরিবর্ধন করা হয়।
    ii) যদি পণ্যের সিরিয়াল নম্বর/বারকোড সরানো, পরিবর্তন করা অথবা প্রতিলিপি তৈরি করা হয়, তবে ওয়ারেন্টি অবৈধ হবে।
  2. এই ওয়ারেন্টি কেবল পণ্য এবং শিল্পকর্মে উৎপন্ন ত্রুটিগুলি কভার করে, প্রতিস্থাপন করা হবে প্রতিস্থাপনকর্তা দ্বারা যাচাইযোগ্য করা অনুসারে।
  3. অধিকারী সংস্থা সামগ্রিকভাবে অগ্রাধিকার অনুমোদন করে, পরিবর্তন, সংশোধন, বন্ধ বা ওয়ারেন্টি মেয়াদ বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে রাখে বিনা পূর্ব নোটিশে।

এসি চালানোর সঠিক নিয়ম:

দিন দিন গরম বাড়ছে। গরমে থেকে মুক্তি পেতে অনেকে এসির দিকে মুখ তুলছে। বাড়তেই চাইছে ঘরটি দ্রুত ঠাণ্ডা হয়ে যাক, কারণ এসি ছাড়া অন্য কোন বিকল্প পাওয়া যায় না। তবে, এসি চালানোর সঠিক নিয়ম অধিকাংশ লোকের জানা নেই। এর ফলে, একদিকে বিদ্যুৎ বিল বাড়ছে, আর অন্যদিকে রুম ঠাণ্ডা হতে সময় বেশি লাগছে। এসি চালানোর সঠিক নিয়ম জেনে নিন।

স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখুন:
যদি আপনি মনে করেন যে এসি তাপমাত্রা ন্যূনতমে সেট করলে ঘরটি দ্রুত ঠান্ডা হয়, তাহলে আপনি ভুল ভাবছেন। একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, ২৪ ডিগ্রি তাপমাত্রা সঠিক হয়। আপনার এসির তাপমাত্রা ২৪ ডিগ্রিতে রাখলে, মেশিনে কোনও লোড থাকবে না এবং বিদ্যুৎ বিলও কমে আসবে।

নিয়মিত এসি সার্ভিসিং করুন:
এসির রক্ষণাবেক্ষণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিয়মিত এসি সার্ভিসিং করতে হবে যাতে এটি দীর্ঘকালে ঠিকমতো কাজ করে। অল্প খরচে এসি সার্ভিসিং করানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এসি ফিল্টার পরিষ্কার করুন:
সিজনে একবার বা দুইবার এসি সার্ভিসিং করতে পারে, তবে এসি ফিল্টার প্রতি মাসে পরিষ্কার করা উচিত। ময়লা জমা হতে পারে এবং এসি ফিল্টার ঠিকমতো কাজ করতে পারে না। এর ফলে মেশিনের জন্য রুম ঠাণ্ডা করা কঠিন হয়ে যায় এবং বিদ্যুৎ বিল বেড়ে যায়। এই কারণে, নিয়মিতভাবে এসির ফিল্টার পরিষ্কার করা উচিত।

দরজা ও জানালা বন্ধ রাখুন:
এসির কর্মক্ষমতা বাড়াতে, দরজা এবং জানালা বন্ধ রাখুন। এই উপায়ে দ্রুত ঘর ঠাণ্ডা হয় এবং ইলেকট্রিক বিল কম আসে।

এসি মোড এক্সপ্লোর করুন:
এসি ইউনিটে বেশ কিছু মোড থাকতে পারে, যেগুলি

কম বিদ্যুৎ খরচ করে। এগুলি ব্যবহার করে আপনি বিদ্যুতের বিল কমাতে পারেন।

এসি কতক্ষণ চালানো উচিত?

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একটি এয়ার কন্ডিশনার চালানো উচিত প্রতিবার ১৫-২০ মিনিটের জন্য। এটি তাপমাত্রা কমিয়ে ঘরটি ঠান্ডা করতে পারে। এরপর আপনি ২০ মিনিট পর এসি বন্ধ করতে পারেন। এতে দেখতে পাবেন ঘর অনেকটা সামান্য সময়ের জন্য ঠান্ডা থাকবে।

এই সময়ে খেয়াল রাখতে হবে যেন গরম বায়ু ঘরে ঢুকে না। তার জন্য ঘরের জানালা-দরজা বন্ধ রাখুন এবং জানালায় ভারি পর্দা ব্যবহার করুন।

অতিরিক্ত গরমের দিনে যদি প্রয়োজন হয়, তাহলে এয়ার কন্ডিশনারটি বেশি সময়ের জন্য চালাতে পারেন। তবে চেষ্টা করুন তাপমাত্রা কমিয়ে ঘরটি ঠান্ডা করে তারপর এসি বন্ধ করে দেওয়া।

এসির তাপমাত্রা কত রাখা উচিত?

এসি কত তাপমাত্রায় চালানো উচিত?

এই বিষয়ে চিকিৎসকরা মন্তব্য দিয়েছেন যে, এসির তাপমাত্রা সঠিক স্তরে রাখা উচিত। সাধারণত ২২-২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এসির তাপমাত্রা রাখা প্রয়োজন।

এই তাপমাত্রার মধ্যে শরীরটি নিজেকে সহজেই অভ্যন্তরীণ অবস্থায় বজায় রাখতে পারে। এছাড়া, সর্দি ও জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমে যায়। তাই চেষ্টা করুন যেন এসি এমন একটি তাপমাত্রায় থাকে যা আপনার কমফর্ট নিয়ে সাথে থাকে।

আর এতে ছাড়া, রাতে এসি ব্যবহারের সময় সতর্ক থাকতে হবে। অনেকে রাতের সময় ১৬-১৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় এসি চালিয়ে ঘুমাতে পড়েন। এই অভ্যাসটি একটি অসুস্থ অবস্থায় ফেলে যেতে পারে। কারণ ঘুমানোর পর শরীরের তাপমাত্রা যেন ঠিকমতো নিয়ন্ত্রিত হয় না। তাই যদি ঠান্ডা বেশি হয়, তাহলে সকালে উঠে সমস্যা হতে পারে। রাতে এসি চালানোর সময় সেট করুন ২২-২৮ ডিগ্রির মধ্যে। সেই সময়ে যদি ঘর ঠান্ডা হয়, তাহলে এসি অটোমেটিকভাবে বন্ধ হবে।

এবং যদি ঘরে কোনো ছোট শিশু থাকে বা কেউ সর্দি বা জ্বরে আক্রান্ত হতে পারেন, তাহলে এসি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। এবং অবশ্যই অ্যাজমা ও সিওপিডি রোগীদের জন্য সতর্ক থাকুন।

বি:দ্র: আমরা চেষ্টা করি সঠিক তথ্য দেওয়ার জন্য তবে আমাদের দেওয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে কোন পণ্য ক্রয় করবেন না আপনি অবশ্যই যাছাই বাছাই করে কিনবেন। আপনার মূল্যবাদ মতামত আমাদেরকে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *