ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম ২০২৪

ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম ২০২৪

ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম ২০২৪: এই গরমে আপনার রুমের তাপমাত্রা শীতল রাখতে এয়ার কুলারের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। এয়ার কুলারের সেরা সুবিধা হলো তার প্রযুক্তির অপেক্ষায় কম মূল্য। আপনার বাজেটে ওয়ালটন, মিডিয়া, গ্রী, এবং ভিশন এসির দাম সামায়িক না থাকলে, একটি ওয়াটার কুলার বা এয়ার কুলার ফ্যান একটি অচ্ছা বিকল্প হতে পারে। এই অসহনীয় তাপমাত্রায় এয়ার কুলার বা পোর্টেবল এসি ব্যবহার করে আপনি অধিক স্বস্তির জায়গা তৈরি করতে পারেন। এয়ার কুলারটি বিদ্যুতের জন্য বরফ বা পানি ব্যবহার করে এয়ার ঠান্ডা বাতাস তৈরি করতে হয়, এটি বিদ্যুত্ সাশ্রয়ী হতে পারে। এয়ার কুলার ব্যবহার করলে সাধারিত এসির চেয়ে ৭০%-৮০% কম বিদ্যুত খরচ হতে পারে। এয়ার কুলারের মাধ্যমে ঘরের আদ্রতা আপনি সহনীয় মাত্রায় রাখতে পারেন। এটি খুবই গরমে ঘরে বড় ও ছোট বাচ্চাদের সুস্থতার জন্য একটি ভাল বিকল্প হতে পারে এবং এটি আপনাকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করতে সুবিধা দেয়। বিশেষভাবে এটি শুষ্ক স্থানে অধিক স্বস্তি তৈরি করতে সহায়ক হতে পারে, এবং এটি ইনস্টল করতে কোনও ঝামেলা নেই।

ওয়ালটন এয়ার কুলার

এয়ার কুলার বায়ুমণ্ডলে ঠান্ডা পানিকে বাষ্পীভূত করে এবং বায়ুমণ্ডলে এটি মিশিয়ে দেয়, এইভাবে কিছু তাপ অপসারণ করে। এয়ার কুলার শুষ্ক ঋতুতে তাপমাত্রা 5° থেকে 15°F প্রায় কমাতে সক্ষম হতে পারে। দেশিয় বাজারে যত কোম্পানি রয়েছে যেমন, ভিশন, যমুনা, সিঙ্গার, ভিশন, স্যামসাং,  বাংলাদেশের কোম্পানি হিসাবে ওয়ালটনের ভাল খ্যাতি রয়েছে। ওয়ালটনের প্রতিটি পন্য দেশিয় বাজার ছাড়িয়ে আজ বিশ্ববাজারে সমাদৃত। ওয়ালটনের এয়ারকুলার তাদের গুনগতমানের জন্য গ্রাহনের নিকট গ্রহনযোগ্যতা পায়।

বিসিএস, ব্যাংক সহ অন্যান্য চাকুরির প্রস্তুতির জন্য সহায়ক সকল পিডিএফ বই পেতে ভিজিট করুন : PDF Archive BD । ভিশন এয়ার কুলার দাম ২০২৪

ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম

ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম ২০২৪ বর্তমানে ৫,০০০ টাকা থেকে ১২,০০০ টাকার মধ্যে একটি ভাল মানের একটি এয়ার কুলার পাবেন। নিদির্ষ্ট কিছু ফিচারের ভিন্নতার কারনে দামের ভিন্নতা রয়েছে। তবে বর্তমানে চলছে প্রতিটি এয়ার কুলারেই থাকছে ১২% ছাড়।

ওয়ালটন এয়ার কুলারের বৈশিষ্ট্য:

১। হানিকম্ব মিডিয়া: ওয়ালটনের এয়ার কুলারগুলোতে রয়েছে পরিবেশবান্ধব হানিকম্ব মিডিয়া সিস্টেমা । যা আউটলেট টেমপেরেচার কমিয়ে আপনার স্বাস্থের ক্ষতি সাধন থেকে বাচাবে।

২। সুইং ও কন্ট্রো: এয়ারকুলারগুলো অটোমেটিক রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে সুয়িং করবে এবং 3 Speed Control করবে।

৩। এলার্ম সিস্টেম: উন্নত প্রযুক্তিগত সুবিধার ফলে এয়ার কুলারে পানির স্বল্পতার সিগনাল দিবে।

ওয়ালটনের অন্যান্য পণ্যের বিস্তারিত দেখতে নিচের দেওয়া লিংকে ক্লিক করুন:

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪ । ওয়ালটন ফ্রিজ দাম ২০২৪ । ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৪ । ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের দাম ২০২৪(Opens in a new browser tab)

এয়ার কুলার ব্যবহারের নিয়ম

আপনি যে রুমে এয়ার কুলার ইনস্টল করেছেন তাহলে সবচেয়ে প্রথমে নিশ্চিত হন যে, এটি সঠিক জায়গায় ইনস্টল হয়েছে। এটি এমন একটি জায়গায় থাকতে হবে যেখানে অন্যান্য কক্ষেও ঠান্ডা বাতাস পৌঁছাতে পারে।

আপনার রুমের তাপমাত্রা কমাতে, এয়ার কুলার চালু করার আগে তাতে বরফ পানি যোগ করুন। এটি করলে ঘর একটু আরো ঠান্ডা হবে। নিয়মিতভাবে কুলিং প্যাডগুলি পরিষ্কার করুন, কারণ তাতে ধূলাবালি জমে যায়।

সপ্তাহে অন্তত একবার প্যাড পরিষ্কার করার জন্য ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও, নিয়মিতভাবে পানি ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করুন এবং তাতে কোনও ফুটো বা ছিদ্র আছে কি না তা নিশ্চিত করুন।

ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম 2024 ওয়ালটন এয়ার কুলারের দাম 2024   ওয়ালটন এয়ার কুলার

 ১। ওয়ালটন এয়ার কুলারের মডেল নম্বর: WEA-B168M

– ইভাপোরেটিভ এয়ার কুলার
– হানিকম্ব কুলিং মিডিয়া
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ৩ লিটার।

– সর্বোত্তম শীতল প্রভাবের জন্য ২ টি বরফের বাক্স।

– এটিতে রয়েছে Vortex টাইপের air duct।
  – বর্তমান মূল্য: ,৩৬৮ টাকা।

২। ওয়ালটন এয়ার কুলার মডেল: WEA-J120C

– এয়ার কুলার উইথ আল্ট্রাসনিক Humidifier।

– হানিকম্ব কুলিং মিডিয়া
– টাইমার ০.৫ ~ ৭.৫ ঘন্টা।
–  বেটার কুলিং ইফেক্ট এর জন্য আইস কমপার্টমেন্ট।
– কম শব্দ সহ উচ্চ বাতাসের গতি
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ১০ লিটার।
– সুপার সেনসেটিভ কন্ট্রোল প্যানেল এবং রিমোট কন্ট্রোল।
  – বর্তমান মূল্য: ১১,৪৪০ টাকা।

৩। ওয়ালটন এয়ার কুলার নম্বর: WEA-V28R

– ইভাপোরেটিভ এয়ার কুলার সিস্টেম।

– হানিকম্ব কুলিং মিডিয়া সহ Anion function ।
– টাইমার ০.৫ ~ ৭.৫ ঘন্টা।

– অপটিমাম কুলিং ইফেক্টের জন্য ২ টি আইস প্যাক।

– হানিকম্ব কুলিং মিডিয়া
– টাইমার ০.৫ ~ ৭.৫ ঘন্টা।
–  বেটার কুলিং ইফেক্ট এর জন্য আইস কমপার্টমেন্ট।
– কম শব্দ সহ উচ্চ বাতাসের গতি
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ৪ লিটার।
– সুপার সেনসেটিভ কন্ট্রোল প্যানেল এবং রিমোট কন্ট্রোল।

বর্তমান মূল্য: ,৯০৮ টাকা।

৪। ওয়ালটন এয়ার কুলার নম্বর: WEA-B128R

– হানিকম্ব কুলিং মিডিয়া
– টাইমার ০.৫ ~ ৭.৫ ঘন্টা।
–  ভাল কুলিং ইফেক্ট এর জন্য আইস কমপার্টমেন্ট।
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ৭ লিটার।
– সুপার সেনসেটিভ কন্ট্রোল প্যানেল এবং রিমোট কন্ট্রোল।

বর্তমান মূল্য: ৮৬৬৮ টাকা।

৫। ওয়ালটন এয়ার কুলার নম্বর: WEA-D198R

– পানি স্বল্পতার অ্যালার্ম দিবে।
– টাইমার ০.০ ~ ১২ ঘন্টা।
–  ভাল কুলিং ইফেক্ট এর জন্য আইস কমপার্টমেন্ট।
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ১২ লিটার সহ Ionizer।

বর্তমান মূল্য: ১০,৫১৬ টাকা।

৬।ওয়ালটন এয়ার কুলার নম্বর: WEA-W18R

– ৪ সাইড হানিকম্ব মিডিয়া।
– টাইমার ০.০ ~ ১২ ঘন্টা।
–  ভাল কুলিং ইফেক্ট এর জন্য আইস কমপার্টমেন্ট।
– ওয়াটার ট্যাঙ্কের ক্ষমতা ১৮ লিটার সহ Ionizer।

বর্তমান মূল্য: ১২,৩২০ টাকা।

ওয়ারেন্টি বিষয়ক তথ্য:

– প্রধান অংশের ওয়ারেন্টি: ৬ মাস।
– খুচরা অন্যান্য যন্ত্রাংশের: ৬ মাস।
– বিক্রয় পরবর্তী সার্ভিসিং ৬ মাস ফ্রি।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: এই ওয়ারেন্টি কোনো দুর্ঘটনা, বিদ্যুতের ত্রুটি, প্রাকৃতিক কারণ, অথবা অবহেলার কারণে কোনো ক্ষতি কভার করবে না। এছাড়াও, এই ওয়ারেন্টি প্রদানকারী কোনো পূর্ব নোটিশ ছাড়াই ওয়ারেন্টি পিরিয়ডের মধ্যে পরিবর্তন, ব্যয়, সংশোধন, বন্ধ বা বাতিল করতে সক্ষম।

কোন অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য গুরুত্বপূর্ণ?
কিছু বৈশিষ্ট্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যা সাধারণভাবে বড়
এবং ছোট এয়ার কুলারে থাকতে পারে।

দোলন ফাংশনঃ এটি পাশাপাশি, উপরে এবং নীচে কাজ করে এবং সর্বত্র সমানভাবে বায়ু বিতরণ করতে সাহায্য করে। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যেখানে একই ঘরে বড় সংখ্যক লোক থাকে এবং প্রতিটি ব্যক্তি প্রবাহিত বাতাস পায়।

এয়ার ভলিউমঃ এয়ার কুলারের ভলিউম আকার পরীক্ষা করুন, যত বড় হবে
ততো ভালো।

টার্বো ব্লোয়ারঃ কিছু এয়ার কুলারে টার্বো ব্লোয়ার থাকতে পারে যা প্রয়োজনে শক্তিশালী
বাতাস সরবরাহ করতে পারে।

বাষ্পীভবন ক্ষমতাঃ এটি ঠান্ডা করার দ্রুততা নির্ধারণ করবে। বাংলাদেশে বড় অংশই গরম এবং আর্দ্রতা, তাই বাষ্পীভবন ক্ষমতা অধিক হলে ভালো।

সুগন্ধি ফাংশনঃ কিছু এয়ার কুলারে এই সুগন্ধি ফাংশন
থাকতে পারে যেখানে সুন্দর গন্ধ অথবা পারফিউম যোগ করা হতে পারে।

ডিসপ্লেঃ এলসিডি ডিসপ্লের সেটিংস চেক করতে এবং নিয়ন্ত্রণ করতে এটি অনেক সুবিধা দেবে।

টাইমারঃ যদি একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য কুলার চালাতে চান তবে এই ফাংশন প্রয়োজন।
এটি নির্ধারিত সময়ের পরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হবে।

নয়েজ লেভেলঃ এটি ফ্যানের আওয়াজকে মিনিমাইজ করতে পারে এবং ঘুমের ব্যাঘাত হ্রাস করতে পারে। যদি ঘরে শিশু থাকে তবে কম শব্দের এয়ার
কুলার ফ্যান অধিক উপযোগী হতে পারে।

বি:দ্র: আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য ওয়ালটনের ওয়েবসাইট বা ফেচবুক পেজ
থেকে সংগ্রহ করা। আমরা ওয়ালটনের কোন পণ্য বিক্রি করি না এমনকি এটি
কোন স্পন্সরসিপ পোষ্ট নয়। আমরা শুধুমাত্র ওয়ালটন এয়ার কুলার দাম ২০২৪ সম্পর্কে রিভিও দেওয়ার চেষ্টা করছি। পন্যটি ক্রয়ের পূর্বে অবশ্যই দাম যাছাই করে কিনবেন। আর আপনার কোন মতামত, অনুরোধ থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *