walton charger fan

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২৪

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২৪: গরমের দিনগুলিতে, বিশেষ করে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সময়, চার্জার ফ্যানের গুরুত্ব অনেক। বাংলাদেশের মতো গরম ও আর্দ্র আবহাওয়ায়, চার্জার ফ্যান হল একটি অত্যন্ত উপকারী পণ্য। এটি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হওয়ার সময়েও আরামদায়ক শীতলতা প্রদান করে, যা এর প্রধান আকর্ষণ। চার্জার ফ্যান ব্যাটারি চালিত হওয়ায়, এটি বিদ্যুৎ না থাকলেও কাজ করে। এই ফ্যানের ব্যাটারি দীর্ঘ সময় ধরে চালিত থাকে, যা বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে বা শহরের যে সব এলাকায় নিয়মিত লোড শেডিং হয়, সেখানে অত্যন্ত সাহায্যকর। আরেকটি বড় সুবিধা হল এর বহনযোগ্যতা। চার্জার ফ্যানগুলি সাধারণত হালকা ও সহজে স্থানান্তরযোগ্য। গরমের দিনগুলিতে, যখন বিদ্যুৎ চলে যায়, তখন চার্জার ফ্যান সত্যিই একটি আশীর্বাদ। এই ফ্যানটি ব্যাটারি চালিত, এবং এটি চার্জ করা যায়, যার ফলে বিদ্যুৎ না থাকলেও আমরা শীতল বাতাস পাই। আমাদের দেশে বিভিন্ন কোম্পানি চার্জার ফ্যানের সাপ্লাই করে থাকে তাদের মধ্যে ওয়ালটন অন্যতম।

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের ডিজাইন অনেক সুন্দর ও আধুনিক। এটি ঘরের সাজসজ্জার সাথে খুব সহজেই মিলে যায়। এর ব্যবহার খুবই সহজ, এবং এটি বহনযোগ্যও বটে। যে কোনো জায়গায় নিয়ে যেতে পারেন, যেমন পিকনিকে বা বাইরে কোথাও গেলে। এর ব্যাটারি লাইফ বেশ দীর্ঘ, একবার চার্জ করলে অনেক সময় ধরে চলে। ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের আরেকটি বিশেষত্ব হল এর শক্তি সাশ্রয়ী প্রকৃতি। বিদ্যুৎ খরচ অনেক কম, যা পরিবেশ এবং আমাদের পকেটের জন্যও ভালো। বাজারে বিভিন্ন মডেল ও রঙে এই ফ্যান পাওয়া যায়, যাতে ক্রেতারা তাদের পছন্দ মতো নির্বাচন করতে পারেন। সব মিলিয়ে, ওয়ালটন চার্জার ফ্যান বাংলাদেশের গরমের দিনগুলিতে একটি আদর্শ সমাধান প্রদান করে। এর আরামদায়ক বাতাস, সহজ ব্যবহার, এবং শক্তি সাশ্রয়ী বৈশিষ্ট্য এটিকে প্রতিটি ঘরের জন্য একটি অপরিহার্য পণ্য করে তোলে।

একটা কথা মনে রাখবেন, দামের সাথে সাথে ফ্যানের মান ও দীর্ঘস্থায়িত্বের দিকেও নজর দিন। ভালো মানের একটা ফ্যান হয়তো একটু বেশি দামে কিনতে হবে, কিন্তু সেটা দীর্ঘমেয়াদী সেবা দিতে পারে। আর অবশ্যই, ফ্যান কেনার আগে প্রোডাক্টের রিভিউ ও রেটিং দেখে নিন, যাতে আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

 ওয়ালটন-চার্জার-ফ্যানের-দাম-২০২৪  
বিসিএস, ব্যাংক সহ অন্যান্য সকল সরকারি বেসরকারি চাকুরির প্রস্তুতির জন্য সহায়ক বই পেতে ভিজিট করুন: পিডিএফ আর্কাইভ বিডি

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের বৈশিষ্ট্য:

ওয়ালটন মনিটরের দাম ২০২৪সুপার স্টার ফ্যান দাম ২০২৪

  • AC থেকে DC-এর মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্যুইচিং ব্যবস্থা।
  •  ওভারচার্জ এবং ওভার ডিসচার্জ সুরক্ষা ব্যবস্থা সহ দীর্ঘ সময়ের ব্যাটারি।
  •  অটোমেটিক oscillation সিস্টেম।
  • High/Low/Natural স্প্রিড সিলেকশন।
  • লাইলিং সিস্টেম।
  • দীর্ঘমেয়াদী ব্যাটারি জীবন: ওয়ালটন চার্জার ফ্যান সাধারণত দীর্ঘক্ষণ চালানোর জন্য শক্তিশালী ব্যাটারি সম্বলিত হয়। এর ফলে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নতার সময়েও এই ফ্যান দীর্ঘক্ষণ পর্যন্ত চলতে সক্ষম।
  • এডজাস্টেবল গতির সেটিংস: বিভিন্ন গতির স্তর থাকার কারণে ব্যবহারকারীরা তাদের প্রয়োজন মতো ফ্যানের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।
  • পোর্টেবল ডিজাইন: এই চার্জার ফ্যানগুলো সাধারণত হালকা এবং সহজে বহনযোগ্য হয়, যা এগুলোকে ভ্রমণের জন্য আদর্শ করে তোলে।
  • দীর্ঘস্থায়ী মোটর এবং ব্লেড: ওয়ালটনের ফ্যানগুলো শক্তিশালী মোটর এবং টেকসই ব্লেড দ্বারা নির্মিত হয়, যা দীর্ঘ সময় ধরে নির্বিঘ্নে পরিষেবা দেয়।
  • বহুমুখী ব্যবহার: এই ফ্যানগুলো বাসা, অফিস, এবং বাইরের বিভিন্ন পরিস্থিতিতে ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত।
  • সহজে চার্জেবল: চার্জিং পদ্ধতি সহজ এবং সুবিধাজনক, যার ফলে ব্যাটারি চার্জ করা এবং রক্ষণাবেক্ষণ নির্বিঘ্নে করা যায়।
  • আধুনিক ডিজাইন: ওয়ালটন চার্জার ফ্যানগুলো আধুনিক এবং আকর্ষণীয় ডিজাইনে নির্মিত হয়, যা ঘরের সাজসজ্জার সাথে সুন্দরভাবে মিলে যায়।

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম

বর্তমানে ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২৪ এখন ৪০৯০ টাকা থেকে শুরু করে ৬৬৯০ টাকার মধ্যে একটি ভাল মানের ফ্যান পাওয়া যায়। ফ্যানগুলোর বৈশিষ্ট্য প্রায় এক তবে কিছু ফিচারে ভিন্নতার কারনে দামের ভিন্নতা রয়েছে। তবে ওয়ালটনের প্রতিটি পণ্যেই ১২% ডিসকাউন্ট চলছে। এবং ক্রয়ের পূর্বে এর দাম অবশ্যই যাছাই করবেন।

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২৪ ও তালিকাসহ সংক্ষিপ্ত বিবরনী:

১। চার্জার ফ্যানের মডেল:  W17OA-EM-MS 17 Inch, Range: 90V-265V, Charging Time – 8-10 Hours, Natural Speed – 3.5 Hours, Low Speed – 6.0 Hours, LED Light – 90 Hours, Battery – Rechargeable Lead Acid 12V 4.5Ah, Rated Input – 30 watt, Fan motor – DC 12V – বর্তমান মূল্য: ৫৯৯০ টাকা।

২। চার্জার ফ্যানের মডেল: W17OA-MS 17 Inch, Power Consumption: 20 W, Current – 0.20 A, Speed- 1500 RPM, Input Power- 20 watt, Power Factor – 0.45, Service Value – 0.8  M³/Min/watt, Type of Motor – DC Motor 6V, Charging Time – 8-10 Hours, Natural Speed – 5.0 Hours, Low Speed – 8.0 Hours, LED Light – 150 Hours – বর্তমান মূল্য: ৬,২৯০ টাকা।

৩। চার্জার ফ্যানের মডেল: W17OA-AS 17 Inch, Size – 430mm, Current – 0.20 A, Speed- 1500 RPM, Input Power- 20 watt, Power Factor – 0.45, Service Value – 0.8  M³/Min/watt, Type of Motor – DC Motor 6V, Charging Time – 8-10 Hours, Natural Speed – 5.0 Hours, Low Speed – 8.0 Hours, LED Light – 150 Hours – বর্তমান মূল্য: ৬৬৯০ টাকা।

৪। চার্জার ফ্যানের মডেল: WRTF14A 14 Inch , Power Consumption: 20 W, Current – 0.20 A, Speed- 1500 RPM, Input Power- 20 watt, Power Factor – 0.45, Service Value – 0.8  M³/Min/watt, Type of Motor – DC Motor 6V, Charging Time – 8-10 Hours, Natural Speed – 5.0 Hours, Low Speed – 8.0 Hours, LED Light – 150 Hours

– বর্তমান মূল্য: ৪৪৯০ টাকা।

৫। চার্জার ফ্যানের মডেল: WRTF12A 12 Inch , Power Consumption: 20 W, Current – 0.20 A, Speed- 1500 RPM, Input Power- 18 watt, Power Factor – 0.42, Service Value – 0.5  M³/Min/watt, Type of Motor – DC Motor 6V, Charging Time – 8-10 Hours, Natural Speed – 6 Hours, Low Speed – 10 Hours, LED Light – 150 Hours – বর্তমান মূল্য: ৪০৯০ টাকা।

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২৪ সম্পর্কে রিভিউ:

ফ্যানের কোয়ালিটি, ওয়ারেন্টি, বাতাসের প্রবাহ, ডিজাইন অনুযায়ী ও বিভিন্ন ব্যবহারকারীর দেওয়া তথ্য মতে মোটামুটি ভালো মানের একটি ফ্যান।

৪.৫ স্টার রেটিং আউট অব ৫।

চার্জার ফ্যান ক্রয়ের পূর্বে কিছু বিশেষ বিষয় মাথায় রাখা উচিৎ, যা নিম্নরূপ:

ওয়ালটন সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৪বিআরবি সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৪ন্যাশনাল সিলিং ফ্যানের দাম ২০২৪

  1. ব্যাটারি জীবন: চার্জার ফ্যান ব্যবহার করার সময় এর ব্যাটারি জীবন অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ। কত ঘণ্টা একবার চার্জ দিয়ে ফ্যান চালানো যায়, তা জেনে নিন।
  2. চার্জিং সময়: ফ্যানটি পূর্ণ চার্জ হতে কত সময় লাগে তা জেনে নেওয়া ভালো।
  3. শক্তি: ফ্যানের শক্তি ও বাতাসের গতি কেমন তা দেখুন। ভালো শক্তি ও বাতাসের প্রবাহ আরামদায়ক বাতাস প্রদান করে।
  4. ব্যবহারের সুবিধা: ফ্যানটি কি সহজে বহনযোগ্য? এর ওজন ও ডিজাইন কেমন, তা দেখে নিন।
  5. ব্র্যান্ড ওয়ারেন্টি: প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ডের পণ্য কিনুন এবং ওয়ারেন্টির শর্তাবলী সম্পর্কে জানুন।
  6. মূল্য: ফ্যানের দাম তার মানের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ কিনা তা যাচাই করুন।
  7. প্রযুক্তিগত বৈশিষ্ট্য: কিছু চার্জার ফ্যানে থাকে অতিরিক্ত ফিচার যেমন LED লাইট, মোবাইল ফোন চার্জার ইত্যাদি। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী এগুলো দেখে নিন।
  8. গ্রাহক প্রতিক্রিয়া: পণ্য কেনার আগে অন্য ক্রেতাদের প্রতিক্রিয়া ও রিভিউ দেখে নিন।

এই সব বিষয় মাথায় রেখে ফ্যান কিনলে আপনি ভালো একটা পণ্য পেতে পারেন যা আপনার প্রয়োজন ও অপেক্ষা মেটাবে।

আমরা এখানে ওয়ালটনের চার্জার ফ্যান সম্পর্কে শতভাগ সঠিক তথ্য আপনাদের সামনে উপস্থাপন করার চেষ্টা করছি। আমরা কোন স্পন্সর পোষ্ট করি না। এবং কোন পন্য বিক্রি করি না। আমাদের দেওয়া তথ্যের মধ্যে কোন ভুল থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে অথবা ইমেইলের মাধ্যমে জানাবেন। ধন্যবাদ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *