ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪ সম্পর্কে বিস্তারিত : বর্তমান সময়ে ডিপ ফ্রিজ হচ্ছে দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য একটি অপরিহার্য Electric Product । এটি আমাদের বাসাবাড়ির নানা ধরণের খাদ্য ও সবজি তাজা রাখার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে । বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানেও ফ্রিজের ব্যবহার রয়েছে ব্যাপক। বাংলাদেশের অনেক ফ্রিজ কোম্পানি রয়েছে তাদের মধ্যে Walton অন্যতম। আপনার পরিবারের জন্য দীর্ঘস্থায়ী ও উচ্চমানের ফ্রিজ হিসেবে, ওয়ালটনের ফ্রিজ একটি আদর্শ পছন্দ। Walton ডিপ ফ্রিজের অভ্যন্তরীন গঠন ও কার্যকরী ক্ষমতা সহ নানা রকম বৈশিষ্ট্য ফ্রিজগুলোতে সরবরাহ করে থাকে, আমাদের খাবারকে দীর্ঘসময় পর্যন্ত তাজা রাখতে সক্ষম। এই ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম প্রায় ২৫,০০০ টাকা থেকে শুরু হয়ে, বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ৪৫,০০০ থেকে ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত যেতে পারে। বিশেষ ফিচার ও সুবিধার ভিত্তিতে, এই ফ্রিজের দাম আরও বাড়তে পারে। তবে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অফার থাকে ।

ডিপ ফ্রিজ হলো এমন একটি ইলেকট্রনিক ডিভাইস, যা খাদ্যদ্রব্যকে দীর্ঘদিন ধরে সংরক্ষণ করার জন্য ব্যবহৃত হয়। এই ফ্রিজে খাদ্যদ্রব্যকে হিমাঙ্কের নীচে তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা হয়, যার ফলে খাদ্যের পুষ্টিগুণ এবং স্বাদ অপরিবর্তিত থাকে। বাংলাদেশে ডিপ ফ্রিজের চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। এর কারণ হলো, মানুষ এখন স্বাস্থ্যকর খাদ্য নিয়ে বেশি মনোযোগ দিচ্ছে। ডিপ ফ্রিজে খাদ্য সংরক্ষণ করলে, তা তাজা এবং স্বাস্থ্যকর থাকে। বাসাবাড়ির পাশাপাশি রেস্তোরাঁ, দোকান, হোটেল প্রভৃতি বাণিজ্যিক পরিবেশে ওয়ালটনের ডিপ ফ্রিজ বর্তমানে খুব জনপ্রিয়। এই ফ্রিজগুলি খাদ্যদ্রব্যকে দীর্ঘকাল তাজা ও ঠান্ডা রাখার ক্ষমতা রাখে, যা খাবারের গুণগত মান ও স্বাদ বজায় রাখে। বিভিন্ন ধরনের শীতল ক্ষমতা ও স্টোরেজ অপশন সহ, ওয়ালটনের ডিপ ফ্রিজ বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজন পূরণ করে। তাই দেশের সীমানা পেরিয়ে ওয়ালটন কোম্পানির ডিপ ফ্রিজের বাজার আন্তর্জাতিকভাবে তারা তাদের মানসম্পন্ন পরিষেবা এবং গ্রাহক সন্তুষ্টির জন্য পরিচিত।

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪ ও ফিচারসমূহ:

Walton deep fridge 146 Liter price in Bangladesh

Walton deep fridge 146 Liter price in Bangladesh

Walton Refrigerator 12 CFT Price in Bangladesh

ডিপ ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-1B5-GDEL-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ১৪৫ লিটার।

এতে রয়েছে পরিবেশ বান্ধব টেকনোলজি।

উন্নত মানের গ্যাসের ব্যবহার করা হয়েছে।

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী একটি ফ্রিজ।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ২৬,৯৯০/-

ডিপ ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-1D5-RRXX-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ১৪৬ লিটার।

ফ্রিজটি ইকো ফ্রেন্ডলি

১০% বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ২৮,৭৯০/-

ডিপ ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-1D5-GDEL-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ১৪৬ লিটার।

কাচের ডোরের ফ্রিজটি দেখতে অনেক সুন্দর।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ২৯৯৯০/-

ডিপ ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-1D5-GDEL-LX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ১৪৫ লিটার।

নাইস আউটলুক।

কপার কনডেন্সর প্রযুক্তি।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩০৪৯০/-

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ 205 লিটার দাম

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ 205 লিটার দাম

Walton Refrigerator 10 cft price in Bangladesh

ডিপ ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-2T5-RRLX-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ২০৫ লিটার।

ডিরেক্ট কুল সিস্টেম।

সাবলীল ডিজাইন

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩৪,৪৯০/-

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCF-2T5-GDEL-GX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ২০৫ লিটার।

চমৎকার গ্লাস ডোর ও আউটলুকিং

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩৫,৯৯০/-

ওয়ালটন ফ্রিজ ২৫০ লিটার দাম কত?

ওয়ালটন ফ্রিজ ২৫০ লিটার দাম কত?

Walton Refrigerator 9 cft price in Bangladesh

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCG-2E5-EHLC-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ২৫৫ লিটার।

ন্যানো সিলভার প্রযুক্তিতে তৈরি।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩৭,৯৯০/-

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCG-2E5-EHLX-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ২৫৫ লিটার।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩৮,৯৯০/-

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCG-2E5-GDEL-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ২৫৫ লিটার।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৩৯,৯৯০/-

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ 300 লিটার

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ 300 লিটার

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCG-3J0-RXLX-XX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ৩০০ লিটার।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৪২,৪৯০/-

ফ্রিজের নাম : ওয়ালটন WCG-3J0-RXLX-GX

ফ্রিজটির ধারন ক্ষমতা : ৩০০ লিটার।

ফ্রিজটির বর্তমান মূল্য : ৪৩,৪৯০/-

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম ২০২৪: নতুন একটি ফ্রিজ ক্রয়ের পূুর্বে কিছু বিষয় অবশ্যই জেনে নিন-

১. কনডেন্সার:
যেই ফ্রিজটি কিনতে চাচ্ছেন সেই ফ্রিজটির কনডেন্সার কিসের তৈরি তা অবশ্যই জেনে নেবেন। যদি কপার কনডেন্সারযুক্ত ফ্রিজ পাব তবেই সেটি কিনুন। কপার কনডেন্সারযুক্ত ফ্রিজের কম্প্রেসারের সঙ্গে তামার তৈরি কুলিং সিস্টেম পাইপ থাকে। যেগুলো ফ্রিজের পেছনে ও বডির ভেতরে থাকে। তাই কপার কনডেন্সরযুক্ত ফ্রিজ বেশি টেকসই ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হয়। ফলে ফ্রিজের গ্যাস সহজে লিকেজ হয় না,এমনকি মরিচা পড়ে না, ক্যাপেলরি জ্যাম হয় না। আবার তাড়াতাড়ি ঠান্ডাও হয়ে যায়।

২. বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী কি না:
কিছু ফ্রিজে বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয়। কাক্ষিত ফ্রিজটি কেনার আগে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী কি না তা জেনে নিন আগে। আবার এমন ফ্রিজ পরিবেশবান্ধবও কি না তা যেনে নিন। ফ্রিজের গায়ে কোথাও স্টার মার্ক দেওয়া আছে কি না তা লক্ষ্য করুন। ফ্রিজের গায়ের এই চিহ্ন থাকলেই বুঝতে হবে সেটি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী।

৩. ফ্রস্ট নাকি নন ফ্রস্ট:
যে ফ্রিজটি কিনতে চাচ্ছেন সেটি ফ্রস্ট নাকি নন ফ্রস্ট তা জেনে বুঝে তবেই কিনুন। যেসব ফ্রিজের ভেতরে রাখা সংরক্ষিত খাবারে বরফ জমে যায় তাকে ফ্রস্ট ফ্রিজ বলে। অন্যদিকে যে ফ্রিজের ভেতরে ও সংরক্ষিত খাবারে বরফ জমে না তাকে নন ফ্রস্ট ফ্রিজ বলে। নন ফ্রস্ট ফ্রিজগুলোতে অনেক বিদ্যুৎ খরচ হয় ও কারেন্ট চলে গেলে খাবার ২-৩ ঘণ্টার বেশি থাকে না। বিদ্যুৎ না থাকলেও খাবার কয়েক ঘণ্টা ভালো থাকে ফ্রস্ট ফ্রিজে। এ ধরনের ফ্রিজগুলো অনেকটাই বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী।

৪. স্মার্ট ফ্রিজ:
বর্তমানে স্মার্ট ফ্রিজের চাহিদা বেশি। যে ফ্রিজগুলোতে ইনভার্টার প্রযুক্তি থাকে। এতে পাঁচটি মোড কাজ করে। একটিতে ওপরে ডিপ আর নিচে সাধারণ ফ্রিজ থাকে। নতুন এই প্রযুক্তির যন্ত্রে ডিপ ফ্রিজকে রূপান্তর করে পুরোটাই সাধারণ ফ্রিজ করে ফেলা যায়। স্মার্ট ফ্রিজ ব্যবহারের অনেক সুবিধা আছে। যেমন- কেউ ঘরের বাইরে গেলে দীর্ঘ সময়ের জন্য এনার্জি সেভিং মোড চালু করে রাখতে পারেন।

৫. কম্প্রোসার:
ফ্রিজের কম্প্রোসারই হলো ফ্রিজের প্রধান ইঞ্জিন। এর ওপরই নির্ভর করে ফ্রিজটি কতদিন টিকবে। মনে রাখবেন, আপনার ফ্রিজের কম্প্রোসার খারাপ হলে বিদ্যুৎ খরচ বাড়বে। তাই কেনার আগে ফ্রিজের কমপ্রেসার কতটা উন্নত তা যাচাই করে নিন।

ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজ সম্পর্কিত প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

ফ্রিজে কত ওয়াট বিদ্যুৎ লাগে??

এটা আপনার ব্যবহারের উপর সম্পূর্ন নির্ভর করে। তবে উপরোক্ত ফ্রিজগুলোতে সাধারত প্রতি মাসে সর্ব্বোচ্চ ২০০-৩০০/- টাকা বিদ্যুৎ খরচ হতে পারে।.

ওয়ালটন ফ্রিজ ১৫ সেফটি দাম কত 2024?

বর্তমানে ফ্রিজগুলো সেফটি হিসাবে নয় বরং ধারন ক্ষমতার উপর নির্ভর করে দাম নির্ধারিত হয় । তবে ওয়ালটন শোরেুমের তথ্য মতে ৩৯০০০/- টাকা। কিন্তু বিভিন্ন সময় অফার থাকে।

11 সেফটি ফ্রিজের দাম কত?

ব্যাপকভাবে বিক্রিত সকল ব্রান্ডর গড় তালিকায় ১১ সেফটি ফ্রিজের বর্তমান মূল্য ৪৫০০০-৪৭০০০/- এর মধ্যে । তবে  ওয়ালটনের WFE-3X9-GDXX-XX মডেলটি ৪৫,৯৯০/-

[বি:দ্র:] উপরোক্ত পন্যগুলোর মধ্যে থেকে যে কোন পন্যই আপনি কিনুন না কেন তা অবশ্যই ওয়ালটনের নিজস্ব শোরুম থেকে কিনুন অথবা ওয়ালটন প্লাজা থেকে কিনুন। আমাদের দেওয়া তথ্য যদি আপনার কাছে অসঙ্গতিপূর্ণ মনে হয় তাহলে এড়িয়ে যেতে পারেন।  অবশ্যই মনে রাখবেন, কোম্পানী বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দিবসে, উৎসবে ডিসকাউন্ট দিয়ে থাকে ।  

উপরোক্ত তথ্যের মাধ্যমে আমরা ওয়ালটনের বেশ কিছু ডিপ ফ্রিজের তথ্য তুলে ধরেছি সেখান থেকে আপনার পছন্দমত সাইজের ফ্রিজের বিষয় সম্পর্কে জেনে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারেন। ওয়ালটন ডিপ ফ্রিজের দাম সম্পর্কে আশাকরি একটি ভাল ধারণা আপনার চলে এসেছে। এরপরেও যদি আপনার কোন রকম দাম সম্পর্কিত ভুল তথ্য পান বা আপনার কোন প্রশ্ন থাকে সেক্ষেত্রে আপনি   নির্দ্বিধায় আমাদেরকে কমেন্ট সেকশনে আপনার মূল্যবান মতামত জানিয়ে দিবেন ।

আপনি চাইলে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে এ্যাড হতে পারেন : Wikiger

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *