গাজী গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪

গাজী গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪

গাজী গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪: এখন অদ্বিতীয় গ্যাসের চুলা

বর্তমানে সারাবিশ্বে খাদ্যবস্তু রান্না করার জন্য বেশিরভাগ মানুষ গ্যাসের চুলা ব্যবহার করছেন। এই প্রয়োজনীয় রান্না সরঞ্জামগুলির মধ্যে, বাংলাদেশে গ্যাসের চুলা হল সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং প্রচুরভাবে ব্যবহৃত একটি। কিছু সময় আগে, এটি প্রধানত শহর এলাকার লোকজনের মধ্যে ব্যবহৃত হতো, কিন্তু এখন গ্রাম অঞ্চলের অধিকাংশ জায়গাতেই এটি ব্যবহার করা হচ্ছে। এটি শুধু খাদ্য তৈরি করতেই নয়, বরং বিভিন্ন স্থানে যেমন চা দোকান, হোলেট, স্কুল, কলেজ এবং ছোট ফার্মেও গ্যাস চুলায় আগুন জ্বালানো হয়। এছাড়াও, এখন গ্যাসের ব্যবহার আরও বৃদ্ধি পেয়েছে অন্যান্য কাজেও। বাংলাদেশে গ্যাসের চুলা ব্যবহারের প্রচুর চাহিদা হওয়ায়, এটি প্রতিদিন আরও জনপ্রিয় হচ্ছে।

বাংলাদেশে অনেকগুলি ব্র্যান্ড রয়েছে যেগুলি গ্যাসের চুলা তৈরি করে। ওয়ালটন, আরএফএল, গাজী, মিয়াকো, ভিশন এই সবগুলি ব্র্যান্ড খুব জনপ্রিয়। এই কোম্পানিগুলি গ্রাহকদের চাহিদা মেনে নিয়ে বিভিন্ন রকমের গ্যাসের চুলা তৈরি করে। সাধারণভাবে, এগুলি দুই ধরনে আসতে পারে – সিঙ্গেল বার্নার গ্যাসের চুলা এবং ডাবল বার্নার গ্যাসের চুলা। সিঙ্গেল বার্নার গ্যাসের চুলার দাম কিছুটা কম থাকতে পারে ডাবল গ্যাসের চুলার তুলনায়। বাংলাদেশের মানুষের রান্না করার জন্য গ্যাসের চুলা এখন একটি নিত্যপ্রয়োজনীয একটি উপাদান। আমাদের দেশে গ্যাসের চুলার দাম মোটামুটি বাজেটের মধ্যেই হয়ে থাকে। বর্তমানে গাজী গ্যাসের চুলার দাম বাংলাদেশে ৪০০০ টাকা থেকে ১৮০০০ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

যে সমস্ত পরিবারে রান্না তুলনামূলকভাবে বেশি কিংবা কয়েকজন মিলে একসাথে রান্না করে সেই সকল পরিবারের জন্য ডাবল গ্যাসের চুলা দরকার হয়।‌ যার ফলে গ্যাস খরচ কম হয় এবং রান্নাও করাও সহজে হয়ে যায় একসাথে দুইটি। বিশেষ করে যাদের যৌথ ফ্যামিলি রয়েছে তাদের জন্য ডাবল চুলা অত্যন্ত সুবিধাজনক। ‌আর যাদের ছোট/একক পরিবার তারা সিঙ্গেল গ্যাসের চুলায় ব্যবহার করতে পারেন। ‌

ওয়ালটন গিজারের দাম ২০২৪আরএফএল গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪ওয়ালটন গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪

গাজী গ্যাসের চুলার বৈশিষ্ট্য:

গাজী গ্যাসের চুলার দাম ২০২৪

Flame Failure Device (FFD): একটি FFD অন্তর্ভুক্ত করা একটি গুরুত্বপূর্ণ সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য, যা অসত্ত্বেও অগ্নি নিরাপত্তা নিরাপত্তা প্রদান করে এবং যদি অসুস্থ হয়, তবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বার্নারে গ্যাস সরবরাহটি বন্ধ করে।

কম গ্যাস ব্যবহার: গ্যাসের চুলার দক্ষ গ্যাস ব্যবহার করা না শুধুমাত্র জ্বালানি খরচ কমানোর জন্য উপকারী নয়, বরং এটি এর পরিবেশ প্রভাবও কমাতে সাহায্য করে।

50,000+ বার অটো ইগনিশন এবং 100% ইগনিশন হার: 100% ইগনিশন হার সহ একটি অটোমেটিক ইগনিশন সিস্টেমের সাথে, বার্নারগুলি আলোচনা করা হচ্ছে একটি মচক ছাড়া একটি লাইটার বা ম্যাচস্টিকের মধ্যে একটি অতিরিক্ত সরঞ্জাম প্রয়োজন হয়না।

ব্রাস বার্নার ক্যাপ: বার্নার ক্যাপে ব্রাস ব্যবহার করা বহুতাকদম উচ্চ তাপমাত্রা নিয়ে এবং রান্নার সারফেসে তাপকে সঠিকভাবে বিতরিত করার জন্য সাহায্য করে, যাতে এটি সঠিক রান্না ফলাফল হতে পারে। উচ্চ প্যান সাপোর্ট দ্বারা ভারী ওজন উঠিয়ে তুলতে সাহায্য করে, এমনকি চুলার দীর্ঘকালিকতা এবং বহুমুখীতা বাড়ানো হয়।

চুলার দুই বছরের মধ্যে কোন সমস্যা হলে, আমাদের কোম্পানির 24 ঘণ্টার মধ্যে নিজস্ব ইঞ্জিনিয়ার প্রেরণ করে সমস্যা সমাধানে আপনার বাড়িতে গিয়ে সার্ভিস দেবে। এই সেবা প্রদানের জন্য কোনও অতিরিক্ত চার্জ থাকবে না।

৩০% প্রাকৃতিক গ্যাসের সাশ্রয়ী স্টোভে একটি আধুনিক ডিজাইনের শতভাগ ব্রাস বার্নার রয়েছে, যা করে আগুনটি চারদিক থেকে ছড়ায়। এটির অত্যন্ত আকর্ষণীয় ডিজাইন আপনার রান্নাঘরকে বহুগুণ সৌন্দর্যে বৃদ্ধি করবে।

গাজী গ্যাসের চুলার দাম লিষ্ট:

১। গ্যাসের চুলার নাম: EG-772C – Gazi Smiss Gas Stove, বর্তমান মূল্য: ১৪,০৪০ টাকা।

২। গ্যাসের চুলার নাম: P-320C – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৯৭২০ টাকা।

৩। গ্যাসের চুলার নাম: B-242C – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৪৫৮০ টাকা।

৪। গ্যাসের চুলার নাম: GH-8202M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৩,৫০০ টাকা।

৫। গ্যাসের চুলার নাম:GH-8301M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৬,২০০ টাকা।

৬। গ্যাসের চুলার নাম: GH-8208M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৬,২০০ টাকা।

৭। গ্যাসের চুলার নাম: GH-8203M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৪,০৪০ টাকা।

৮। গ্যাসের চুলার নাম: GH-8201M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৪,৫৮০ টাকা।

৯। গ্যাসের চুলার নাম: GA-BGS-30 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৩,৫০০ টাকা।

১০। গ্যাসের চুলার নাম: GA-BGS-21 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৫৬৬০ টাকা।

১১। গ্যাসের চুলার নাম: GA-BGS-508 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৪,০৪০ টাকা।

১২। গ্যাসের চুলার নাম: GA-BGS-17 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৪,০৪০ টাকা।

১৩। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B712G – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৭৭৭৬ টাকা।

১৪। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B712S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৭৫৬০ টাকা।

১৫। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B720S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৬৪৮০ টাকা।

১৬। গ্যাসের চুলার নাম: TG-8801MD9 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৫৪০০ টাকা।

১৭। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B752G – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৩,২৩০ টাকা।

১৮। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B751G – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১১,৮৮০ টাকা।

১৯। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B750G – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১১৮৮০ টাকা।

২০। গ্যাসের চুলার নাম: EG-203S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৫৯৪০ টাকা।

২১। গ্যাসের চুলার নাম: EG-201G – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৪,৮৬০ টাকা।

২২। গ্যাসের চুলার নাম: EG-750S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১০৮০০ টাকা।

২৩। গ্যাসের চুলার নাম: FFD-258C – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৫৬৬০ টাকা।

২৪ । গ্যাসের চুলার নাম: EG-B763S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৯,১৮০ টাকা।

২৫। গ্যাসের চুলার নাম: TG-203 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৯,১৮০ টাকা।

২৬। গ্যাসের চুলার নাম: P-311 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১২,৯৬০ টাকা।

২৭। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B741M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১০,৮০০ টাকা।

২৮। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B744M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১০,২৬০ টাকা।

২৯। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B740M – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১১,৮৮০ টাকা।

৩০। গ্যাসের চুলার নাম: EG-B766S – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১০,৮০০ টাকা।

৩১। গ্যাসের চুলার নাম: B-236 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১০,২৬০ টাকা।

৩২। গ্যাসের চুলার নাম: B-303 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১২,৪২০ টাকা।

৩৩। গ্যাসের চুলার নাম: B-235 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১৭,২৮০ টাকা।

৩৪। গ্যাসের চুলার নাম: B-230 – Gazi Smiss Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ১২,৯৬০ টাকা।

৩৫। গ্যাসের চুলার নাম: HTG-2889 – Gazi Gas Stove – বর্তমান মূল্য: ৩৮৮৮ টাকা।

আপনি কি চাকুরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তাহলে সকল দরকারি বই পিডিএফ পেতে ভিজিট করুন: PDF Archive BD

গ্যাসের চুলা ক্রয়ের পূর্বে কি কি দেখতে হবে?

বাংলাদেশে অনেক জায়গায় মূলত গ্যাসের চুলা ব্যবহার করে খাবার বানানো হয়। আবার, এটি হতে পারে অটোমেটিক বা ম্যানুয়াল গ্যাস চুলা হতে। তবে, গ্যাস চুলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ মেয়াদ রাখতে হবে। এটির বিস্তারিত আলোচনা নিচে দেয়া হলঃ

বার্নারঃ গ্যাসের চুলার একটি মৌলিক অংশ হলো বার্নার। এটি গ্যাসের চুলার প্রধান বাগান, কারণ এটি জ্বলে যাওয়া আগুনের স্রোত ব্যবহার করে খাবার বানানোর জন্য ব্যবহৃত হয়। অনেক বার্নার রয়েছে যা আগুনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে, যা গ্যাস সাশ্রয়ে ক্রিটিকাল হতে পারে। এই কারণে, উন্নত বার্নার সহ গ্যাসের চুলা প্রয়োজন।

গ্যাস সাশ্রয়ঃ বর্তমানে, এলপিজি এবং এনজি গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এই কারণে গ্যাস সাশ্রয়ী চুলা প্রচুর। অটোমেটিক গ্যাস স্টোভ সাধারিত গ্যাস সাশ্রয়ে বেশি প্রভাবিত হতে সক্ষম।

প্যানেলঃ বর্তমানে, বিভিন্ন উপাদানে তৈরি প্যানেল সহ বিভিন্ন ধরণের গ্যাসের চুলা পাওয়া যায়। গ্লাসের প্যানেল সহ গ্যাসের চুলাগুলি বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয়। তাছাড়া, বিভিন্ন ডিজাইনের গ্যাসের চুলা পাওয়া যায়, এবং তাই রান্নাঘরের প্রয়োজনে উপযুক্ত গ্যাসের চুলা চয়ন করা উচিত।

সাইজঃ বাংলাদেশের মানুষের চাহিদা অনুযায়ী, বিভিন্ন সাইজের গ্যাস স্টোভ পাওয়া যায়। তাই, রান্নাঘরের জমিতে এবং বার্তার অনুপাতে যে গ্যাসের চুলা উপযুক্ত তা নির্বাচন করা উচিত।

বি:দ্র: গাজী চুলার কিনতে অবশ্যই তাদের নিজস্ব শোরুমে যাবেন অথবা তাদের ওয়েবসাইট সহ দারাজ, বিডিস্টল সহ কয়েকটি ওয়েবসাইটে তাদের পন্য পাওয়া যায়। আপনি সেখানে গিয়েও অনলাইনে অর্ডার করতে পারেন।

আমরা এখানে গাজী চুলা সম্পর্কে শতভাগ সঠিক তথ্য দেওয়ার জন্য চেষ্টা করেছি। আমাদের দেওয়া তথ্যের মধ্যে কোন রকমের ভুল তথ্য পেলে অবশ্যই আমাদেরকে জানাবেন আমরা যথাসম্ভব যাছাই করে সংশোধন করব। এ পোস্টটি সম্পর্কে আপনার ব্যক্তিগত মতামত থাকলেও আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *